শেকড়


নাটক-চলচ্চিত্রে লালন

নাটক-চলচ্চিত্রে লালন


শেকড় প্রতিবেদন :মানবতাবাদী বাউল সাধক লালন সাঁই। কালে কালে বেলা অনেক হলেও এ মানুষটির জীবন-দর্শন দিনে দিনে আরও বেশি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠছে আমাদের জীবনে। লালন একটি নাম, একটি ধারা, একটি চেতনা, সর্বোপরি তিনি একজন মানুষ। তাই তার জীবন আর জীবনধারার মাঝে এখনো পথ খুঁজে বেড়ায় মানুষ। আর তাই নানাভাবে লালনকে


লালন-গীতির দর্শন ও আধ্যাত্মিকতা

লালন-গীতির দর্শন ও আধ্যাত্মিকতা


ডক্টর বেগম জাহার আরা : লালন-গীতির মূল উৎসই ভক্তি, গানের প্রতি ছত্রে প্রকাশিত বক্তব্যের মধ্যেই বিধৃত আছে লালনের দর্শন ও তাঁর অধ্যাত্ম-চিন্তার ফসল। লালনের জন্ম, ঠিকানা ইত্যাদি নিয়ে বিতর্ক থাকলেও প্রাপ্ত লালন-গীতির বিপুল সম্ভার আমাদের উপহার দিয়েছে কবি লালনের অকপট সত্তা। তাই মানুষ-লালনের ঠিকানা দূরবর্তী হলেও লালন-গীতির প্রসন্ন সান্নিধ্যে কবি


লালন আখড়ার বিবর্তন

লালন আখড়ার বিবর্তন


সঞ্জয় চাকী : লালন শাহ। বাউল সম্রাট। লালনের গান মানুষকে টানে। টানে লালনের আখড়া বা মাজারও। লালনের পূণ্যভূমি দর্শন করে ধন্য হন অনেকে। তাই মানুষ কোন উদাসী টানে ছুটে আসে লালনের সমাধিসৌধে। দূর-দূরান্ত থেকে। দেশ-বিদেশ থেকে। বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলা কুষ্টিয়া। যাকে বলা হয় দেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী। কুষ্টিয়া শহরতলীতেই ছেঁউড়িয়া। লালন ভূমি।


লালন একজন আধ্যাত্মিক সাধু : ফকির আব্দুল গণি শাহ

লালন একজন আধ্যাত্মিক সাধু : ফকির আব্দুল গণি শাহ


পরিবর্তিত আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে প্রকৃত বাউলদের অবস্থা  সংক্ষীন, এমনকি নিজেদের পরিবারেও যেন কোণঠাসা হয়ে পড়ছেন। নিজেদের মত-পথ-তরিকার প্রতি সন্তানদেরও তেমন একটা আগ্রহী করে তুলতে পারেননি তাঁরা। প্রকৃতত সত্য  হলো ছেঁউড়িয়ায় লালন-তরিকার সাধনার ধারা ধীরে ধীরে ক্ষয়িষ্ণু একটি ধারায় পরিণত হচ্ছে, গুরুবাদী সাধনার ধারা প্রায় বিলুপ্তির পথে। এই ধারায় দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসীদের একজন


ফকির লালন সাঁইজিকে শ্রদ্ধায় স্মরণ করি

ফকির লালন সাঁইজিকে শ্রদ্ধায় স্মরণ করি


সুস্মিতা চক্রবর্তী : কোনো দিন কেউ শুনেছেন বাউলদের মধ্যে ধর্ষণের মত যৌন নিপীড়নের ঘটনা! শোনেন নি হয়তো। কারণ ভেবেছেন কখনো? এত এত বাৎসরিক বাউলসমাবেশ-মেলা হয়। নারীপুরুষ দল বেঁধে একত্রে থাকেন। নাচগান করেন। কেউ কেউ নেশাও করেন। নারীপুরুষের অবাধ মেলামেশা থাকে তবু সেখানে তেমন কোনো নারীনিপীড়নের ঘটনার কথা শোনা যায় না!



>