ডাইনােসরের ‘দুধদাঁত’!


ডাইনােসরের ‘দুধদাঁত’!


স্তন্যপায়ী প্রাণীদরে মতো কোনো কোনো প্রজাতরি ডাইনোসরদরেও নাকি ‘দুধদাঁত’ ছলি। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সসেব দাঁত আবার পড়ওে যতে। স্তন্যপায়ী প্রাণীদরে সঙ্গে তাদরে র্পাথক্যটা হলো, এসব ডাইনোসররে নতুন করে আর দাঁত গজাত না। ডাইনােসরদরে জীবাশ্ম পরীক্ষায় এমন তথ্য পাওয়ার দাবি করছেনে চীনরে বইেজংিয়ে অবস্থতি ক্যাপটিাল নরমাল ইউনভর্িাসটিরি একদল বজ্ঞিানী।

ডাইনোসররে দাঁতরে অস্তত্বি নয়িে যুক্তরাষ্ট্রভত্তিকি জীববজ্ঞিানবষিয়ক র্জানাল কারন্টে বায়োলজতিে চীনরে ওই বজ্ঞিানীদরে একটি গবষেণা প্রতবিদেন প্রকাশতি হয়ছে।ে এতে জানানো হয়ছে,ে তরুণ ডাইনোসররা মাংস খাওয়ার কাজইে মূলত দাঁতরে ব্যবহার করত। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা তৃণভোজী হয়ে উঠত। র্পূণবয়স্ক দাঁতহীন ডাইনোসররা ঠোঁট দয়িইে দাঁতরে কাজ চালয়িে নতি। বশৈষ্ট্যিটা দখো গছেে লমিুসরাস প্রজাতরি ছোট আকৃতরি ডাইনোসরদরে মধ্য।ে প্রায় ১৫ কোটি বছর আগে চীনে এই ডাইনোসরদরে বাস ছলি। এ প্রজাতরি প্রথম জীবাশ্মরে সন্ধান মলেে প্রায় এক দশক আগ।ে এরা কাদার টকিটকিি
নামওে পরচিতি। লমিুসরাস, ট-িরক্সে এবং ভলেোসরিাপটর ডাইনোসররা একই পরবিাররে সদস্য।

তরুণ বয়সে দাঁত থাকা এবং বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা পড়ে যাওয়ার ঘটনা এই প্রথম কোনো সরীসৃপরে মধ্যে দখো গলে। স্কটল্যান্ডরে এডনিবরা বশ্বিবদ্যিালয়রে স্টফিনে ব্রুসাট্টে বলনে, ‘এটা এক অবশ্বিাস্য আবষ্কিার। আজ র্পযন্ত কে ভাবতে পরেছেলি যে এমনও ডাইনোসর পাওয়া গলে, যাদরে শশিুকালে দাঁত ছলি কন্তিু বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা পড়তে থাকত এবং প্রাপ্তবয়স্করা একবোরইে দাঁতহীন ছলি?’

গবষেক দলরে প্রধান শু ওয়া বলনে, ‘চীনরে খাওয়ে এলাকায় আমরা দুটো ডাইনোসররে জীবাশ্ম খুঁজে পাই। একটরি দাঁত ছলি, অপরটি দাঁতহীন। প্রথমে ভবেছেলিাম আমরা হয়তো ছোট দ্বপিদী সরোটোসরয়িা পরবিাররে ভন্নি প্রজাতরি দুটো ডাইনোসররে সন্ধান পয়েছে।ি’ তনিি জানান, পরীক্ষা-নরিীক্ষায় পরে বোঝা গছেে ডাইনোসর দুটো আসলে একই প্রজাতরি। তাদরে মধ্যে র্পাথক্য শুধু মৃত্যুর দনিক্ষণ।ে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই প্রজাতরি ডাইনোসরদরে দাঁত পড়ে যতে।



>